শরণখোলায় আঃ লীগ প্রার্থী বিপুল ভোটে নির্বাচিত

365

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী রায়হান উদ্দিন শান্ত নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে তিনি ৫৬,১৮৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। অপরদিকে তার প্রতিদ্বন্দী জাতীয় পার্টির প্রার্থী এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম পেয়েছেন ৭৬৭ এবং বিএনপি’র প্রার্থী মোঃ মতিয়ার রহমান খান পেয়েছেন ৬৭৩ ভোট। নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফারাজী বেনজীর আহম্মেদ রাত ৮ টায় বেসরকারি ভাবে এ ফলাফল ঘোষনা করেন।


রিটার্নিং অফিসার জানান, কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার চারটি ইউনিয়নের ৩৩টি কেন্দ্রে পূরুষদের পাশাপাশি নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। ৮৯ হাজার ৩৩৭ জন ভোটারের মধ্যে থেকে ৬০ শতাংশ ভোট পড়েছে। এ নির্বাচনের মাধ্যমে ভোটরদের মাধ্যে নির্বাচন কমিশনের উপর একটি আস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
বিজয়ী প্রার্থী রায়হান উদ্দিন শান্ত শান্তিপূর্ণ ভোট হওয়ায় নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের উপর সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দল যে আস্থা নিয়ে আমাকে মনোনায়ন দিয়েছে বিজয়ী হয়ে তার মর্যাদা আমি রক্ষা করেছি। সবাইকে নিয়ে এলাকার উন্নয়নের মাধ্যমে শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করা হবে।


এদিকে প্রতিদ্বন্দী জাতীয় পার্টি প্রার্থী এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, বিগত দিনে আওয়ামীলীগ সরকার যেভাবে নির্বাচন করেছে এবারেও সেইভাবে শান্তিপূর্ণ হয়েছে। তবে বিজয়ী প্রার্থী রায়হান উদ্দিন শান্ত ব্যাক্তিগতভাবে একজন ভাল মানুষ তাই আমি তাকে অভিনন্দন জানাই। বিএনপি’র প্রার্থী মোঃ মতিয়ার রহমান খান বলেন, কয়েকটি কেন্দ্রে আমার কোন এজেন্ট দিতে দেয়া হয়নি। এ সরকারের আমলে সুষ্ঠ নির্বাচন আশা করা যায় না।


ত ৫ ডিসেম্বর শরণখোলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন আকন মৃত্যু বরন করলে গত ১৫ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশন ২০ অক্টোবর এ উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহনের তফসিল ঘোষনা করে। উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী রায়হান উদ্দিন শান্ত নৌকা, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মোঃ মতিয়ার রহমান খান ধানের শীষ এবং জাতীয় পার্টি প্রার্থী এ্যাডঃ শহিদুল ইসলাম লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।